মর্গ্যান ঝড়ে ইংল্যান্ডের দুরন্ত জয়

৩৩ বলে ৬৬ মর্গ্যানের। ইনিংসে ৪ ছক্কা।

পোর্টস ডেস্স্কঃ প্রথম টি-টোয়েন্টি ভেস্তে গিয়েছিল বৃষ্টিতে। দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে দুরন্ত প্রতিদ্বন্দ্বিতা দু’দলের মধ্যে। পাকিস্তান স্বাগতিক ইংল্যান্ডকে ১৯৬ রানের টার্গেট দিয়েছিল। পুরো ২০ ওভার খেলে ৪ উইকেট হারিয়ে ১৯৫ রান করে মিজবাহ উল হকের শিষ্যরা।

দুই পাকিস্তানী ওপেনার বাবর আজম ও ফখর জামান মিলে উদ্বোধনী জুটিতে ৭২ রান এনে দেন। দলীয় ৭২ রানের সময় ব্যাক্তিগত ৩৬ রান করে আউট হন ফখর। এরপর ওয়ান ডাউনে ব্যাট করতে নামা মোহাম্মদ হাফিজকে নিয়ে ৪০ রানের পার্টনারশীপ গড়ার পর দলীয় ১১২ ও ব্যাক্তিগত ৫৬ রান করে আউট হন বাবর আজম। তবে এক প্রান্তে ধরে খেলতে থাকেন হাফিজ। তিনি শোয়েব মালিককে নিয়ে গড়ে তোলেন আরো ৪০ রানের পার্টনারশিপ। ১৬২ রানের সময় ১৪ রান করে বিদায় নেন মালিক। অপরদিকে হাফিজ ৬৯ রান করে আউট হন। ইংল্যান্ডের হয়ে ৪ ওভার করে ৩২ রান দিয়ে ২ টি উইকেট তুলে নেন আদিল রশিদ। আর একটি করে উইকেট তুলে নেন ক্রিস জর্ডান ও টম কুরান।

রোববার(৩০ আগস্ট)ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে টস জিতে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন অধিনায়ক মর্গ্যান। পাকিস্তানের ১৯৫ রানের জবাবে শুরুতে জনি বেয়ারস্টোর ঝোড়ো ইনিংস বিপক্ষের কাঁটা হয়ে দাঁড়ায়। পাওয়ারপ্লেতে ছয় ওভারে বিনা উইকেট হারিয়ে ৬৫ রান তোলে বেয়ারস্টো ও টম ব্যান্টনের জুটি ব্যান্টন ২০ রানে ফিরে গেলেও রানের গতি কমাননি বেয়ারস্টো। ২৪ বলে ৪৪ রান করেন তিনি।

বেয়ারস্টো ও ব্যান্টনের ওপেনিং জুটির ছন্দ বজায় রাখেন দাউয়িদ মালান (অপরাজিত ৫৪) ও মর্গ্যান। ১১২ রানের জুটি গড়ে বিপক্ষের জয়ের আশা শেষ করে দেন তাঁরা। পাঁচ উইকেটে দ্বিতীয় ম্যাচ জিতে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে ১-০ এগিয়ে গেল ইংল্যান্ড।

Facebook Comments
ভাগ