মানিকগঞ্জে ডাস্টবিন ধর্ষক-নিপীড়কদের প্রতি থু-থু ও ময়লা ফেলে ঘৃণা প্রদর্শন

এম আর লিটন : মানিকগঞ্জে ধর্ষক-নিপীড়কদের উদ্দ্যেশে প্রতীকী ডাস্টবিন স্থাপন করে থু-থু ও ময়লা নিক্ষেপ করেছে মানিকগঞ্জ জেলার কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও সাধারণ জনতা।

বৃহস্পতিবার (১৫ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ১০ টায় মানিকগঞ্জ শহরে শহীদ রফিক চত্বরের পূর্ব পাশে মানিকগঞ্জ নিপীড়নবিরোধী ছাত্র জোটের উদ্যোগে এ কর্মসূচি পালন করা হয়।

এসময়, ধর্ষক-নিপীড়কদের ঘৃণা ও এদের সামাজিকভাবে বয়কট করার আহ্বান জানায় নিপীড়নবিরোধী ছাত্র জোট। সংগঠনটি জানায়, ধর্ষণ ও নিপীড়ন রোধে আইনের কঠোর প্রয়োগ যেমন প্রয়োজন, ঠিক তেমনি পরিবার, স্কুল-কলেজ থেকে শুরু করে সামাজিক এবং রাজনৈতিক সংগঠনগুলোর মধ্যে ধর্ষণ বিরোধী নৈতিক মূল্যবোধ গড়ে তুলতে হবে। দেশের বিচারহীনতার কারণে ধর্ষণের পরিমাণ দিন-দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। ধর্ষণ-নিপীড়ন সামাজিক ব্যাধিতে পরিণত হচ্ছে। ধর্ষকের শাস্তি ‘মৃত্যুদণ্ড’ আইনকে স্বাগত জানাই, তবে কাগজে-কলমে সীমাবদ্ধ রাখলে হবে না, দলমত নির্বিশেষে এ আইনের যথাযথ প্রয়াগ করতে হবে। সারাদেশে অব্যাহত ধর্ষণ, নারীর প্রতি সহিংসতার সঙ্গে জড়িতদের দ্রুত সময়ের মধ্যে শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।

সংগঠনটি দাবি করে, পাঠ্যপুস্তকে নারীর প্রতি অবমাননা, বৈষম্যমূলক যেকোনো প্রবন্ধ, নিবন্ধ, পরিচ্ছদ, ছবি, নির্দেশনা ও শব্দচয়ন পরিহার করতে হবে। ধর্মীয়সহ সব ধরনের সভা-সমাবেশে নারী বিরোধী বক্তব্য শাস্তিযোগ্য অপরাধ হিসেবে গণ্য করতে হবে।

কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন, মানিকগঞ্জ নিপীড়নবিরোধী ছাত্র জোটের আহ্বায়ক এম. আর.লিটন, সদস্য সচিব রাসেল আহম্মেদ, যুগ্ম আহ্বায়ক মো. জাহাঙ্গীর আলম, অনিকা হোসাইন, রোকনুজ্জামান রাসেল ও শাহিনুর রহমান এবং সদস্য জাকির হোসেন রুবেল ও মোহাম্মদ মাহবুবুল আলম।

এছড়াও একর্মসূচিতে প্রতীকী ডাস্টবিনে ধর্ষক-নিপীড়কদের প্রতি থু-থু ও ময়লা ফেলে ঘৃণা প্রদর্শন করে শহীদ রফিক সড়কের বিভিন্ন পথচারীরা।

কড়চা/ এম আর এল

Facebook Comments
ভাগ