আইনের শাসন না থাকলে দেশ সোমালিয়া হবে/ -মানিকগঞ্জে স্বাস্থ্যমন্ত্রী

কড়চা রিপোর্ট : স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক স্বপন বলেছেন, আমরা কেউই আইনের উর্দ্ধে নই। আইনের যে ধারা আছে, সে ধারা অনুযায়ী দেশ চলে। আইন মানুষের জন্য, আইন মানুষকে কষ্ট দেওয়ার জন্য নয়। আইন দেশের বিশৃঙ্খলা থামিয়ে রাখে, আইন মানুষকে সাহায্য করে। একটি দেশ তখনি ভালো চলে যেই দেশে আইনের শাসন আছে। যে দেশে আইনের শাসন নাই সেই দেশ সোমালিয়া হবে। কাজেই আইনের প্রতি আমাদের আস্থাশিল হতে হবে। শনিবার (২২ মে) সন্ধ্যায় মানিকগঞ্জ শুভ্রসেন্টারে দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে মতবিনিময়কালে তিনি এসব কথা বলেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম, সহসভাপতি আব্দুল মজিদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুলতানুল আজম খান আপেল, সাংগঠনিক সম্পাদক সুদেব সাহা, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ইসরাফিল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক আফসার উদ্দিন সরকারসহ দলীয় নেতাকর্মীরা।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরো বলেন, আজকে করোনার কারণে ছেলে মেয়েদের লেখাপড়া বন্ধ প্রায় একবছর হয়ে গেল। কোন পরীক্ষা দিতে পারে নাই। ওই দিকে আমাদের চিন্তা করতে হবে। আমাদের দেশের ক্ষতি হচ্ছে। উন্নয়ন যে আশা করেছিলাম ৮ পার্সেন্ট হবে সেটা হচ্ছে না। কমে গেছে করোনার জন্যে। এর মধ্যে যদি আমরা আরো কিছু বিশৃঙ্খলা ঘটাই তাহলে দেশ আরো পিছিয়ে যাবে। উন্নয়ন থেকে যাবে। এটা আমরা চাই না। আমরা সবাই মিলে দেশের কাজ করি। করোনা নিয়ন্ত্রণ করতে না পারলে অর্থনৈতিকভাবে, সামাজিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবো এবং মানুষের মৃত্যু বেড়ে যাবে। এই কথাটি কিন্তু আমাদের মনে রাখতে হবে।

স্বাস্থ্য মন্ত্রী জাহিদ মালেক আরো বলেন, আমরা চাই না দেশের বিরুদ্ধে কোন ষড়যন্ত্র হোক। ষড়যন্ত্র করে বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয়েছিলো, ষড়যন্ত্র করে ২১ আগস্ট প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার উপর গ্রেনেড হামলা হয়েছিলো। ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে হেফাজতের তান্ডব দেখেছি। ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে আমাদের রুখে দাঁড়াতে হবে। তবেই আমাদের দেশ উন্নয়ন হবে। বিএনপি জামাত জোট শুধুমাত্র বিরোধীতাই করেই। তারা দেশের উন্নয়ন চায় না, তারা মানুষের কথা ভাবে না, তারা মানুষের পাশে দাঁড়াইনি। মানুষকে আর বোকা বানানো যাবে না।

তিনি আরো বলেন, দেশে করোনা পরিস্থিতি ভালো ছিলো। কিন্তু আমাদের একটু অনিয়ন্ত্রিত চলাফেরার কারণে দেশে আজ করোনায় মৃত্যু ও সংক্রামণ বেড়ে গেছে। ভারতের সাথে আমাদের বর্ডার করোনার কারণে বন্ধ রয়েছে। যে পর্যন্ত করোনা পরিস্থিতির উন্নয়ন না হবে ততদিন পর্যন্ত ভারতের সাথে আমাদের বর্ডার বন্ধ থাকবে।

কড়চা/ বি সি

Facebook Comments
ভাগ