মানিকগঞ্জে কালিগঙ্গা নদী থেকে নবম শ্রেণির ছাত্রীর লাশ

কড়চা রিপোর্ট : মানিকগঞ্জে নিখোঁজের দুইদিন পর কালিগঙ্গা নদী থেকে সামিয়া ইসলাম (১৫) নামের এক নবম শ্রেণির ছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সোমবার (৪ মার্চ) সকাল ১১ টার দিকে মানিকগঞ্জ পৌর এলাকার কুশেরচরে কালিগঙ্গা নদী থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

সামিয়া ইসলাম মানিকগঞ্জ সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী ছিলো। তার বাবা সাইফুল ইসলাম মানিকগঞ্জ মূলজান পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে লাইনম্যানের চাকরি করেন। তাদের পরিবার মানিকগঞ্জ পৌর এলাকার গঙ্গাধরপট্টিতে ভাড়া বাসায় থাকেন।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ২ মার্চ দুপুর ৩ টার দিকে কোচিং করার জন্য বাসা থেকে বের হয় সামিয়া। সেদিন বিকেল ৫ টার দিকে নদীর পাড়ে একটি স্কুল ব্যাগ পড়ে থাকতে দেখেন একজন মহিলা। ব্যাগের ভেতরে থাকা একটি নাম্বারে ফোন দিলে সামিয়ার বাবা রিসিভ করেন। ব্যাগের সূত্র ধরে সামিয়ার বাবা নদীর পাড়ে খোঁজাখুঁজি করেও তাকে পাননি।

অপরদিকে, বেউথা এলাকার একটি রেস্টুরেন্টের সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায়, সামিয়া ৩ টা ১৬ মিনিটের দিকে চর বেউথা নদীর পাশ দিয়ে একাই হেঁটে যাচ্ছিলো।

মানিকগঞ্জ সদর থানার ওসি হাবিল হোসেন জানান, সকালে একটি কল পেয়ে বেউথা নদীতে ভাসমান মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায় পুলিশ। এর আগে ৩ মার্চ সন্ধ্যায় নিহত সামিয়ার বাবা সাইফুল ইসলাম থানায় একটি মিসিং ডায়েরি করেছিলেন। ময়নাতদন্ত রিপোর্ট ও তদন্ত শেষ হবার পর মূল ঘটনা জানা যাবে। এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

কড়চা/ এস কে

 

Facebook Comments Box
ভাগ