জাদু মন্ত্র ম্যাজিক দিয়ে করোনা নিয়ন্ত্রণ হয়নি : মানিকগঞ্জে স্বাস্থ্য মন্ত্রী

কড়চা রিপোর্ট: স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক স্বপন বলেছেন, দেশে করোনা নিয়ন্ত্রণ আছে বলেই উন্নয়নের চাকা চলমান আছে। করোনা নিয়ন্ত্রণ আজ এমনেই হয়নি, করোনা নিয়ন্ত্রণ কোন জাদু মন্ত্র দিয়ে হয়নি, এটা ম্যাজিক না, এটার পিছনে কাজ করতে হয়েছে। সমালোচনাকারীরা শুধু সমালোচনা করতে পারে, সমালোচনাকে উর্ধে রেখে সঠিক ভাবে কাজ করলে এর সফলতা হবেই।

তিনি বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আজ আমরা করোনা মোকাবেলায় সক্ষম হয়েছি। করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিনের জন্য বসে না থেকে গত মে মাস থেকে বিভিন্ন দেশের সাথে যোগাযোগ করেছি। আমরা ভ্যাকসিন দেওয়া শুরু করেছি, পৃথিবীর অনেক উন্নত দেশ এখনো ভ্যাকসিন পায়নি। ভ্যাকসিন দেওয়ার ক্ষেত্রে আমাদের দেশ বিশ্বের ৬ নম্বরে রয়েছে। বর্তমানে দেশে ১৭ কোটি লোকের মধ্যে মাত্র ১৩ শ’ লোক করোনায় আক্রান্ত রয়েছে। আমাদের দেশে সুস্থ্যতার হার ৯০ ভাগ। ভ্যাকসিন নেওয়ার পাশাপাশি আমাদের স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলতে হবে। তবেই আমরা দেশ থেকে করোনা ভাইরাস আরো নিয়ন্ত্রণ করতে পারবো।

শনিবার(১৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে মানিকগঞ্জ পৌরসভার মিলনায়তনে পৌরসভার উন্নয়নকল্পে ভবিষ্যৎ কর্মপরিকল্পনা বিষয়ে আলোচানা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

পৌর মেয়র মো: রমজান আলীর সভাপতিত্বে কর্মপরিকল্পনা সভায় বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক এস.এম ফেরদৌস, পুলিশ সুপার রিফাত রহমান শামীম, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট গোলাম মহীউদ্দীন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুলতানুল আজম খান আপেল, সাংগঠনিক সম্পাদক সুদেব সাহা, মানিকগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি গোলাম ছারোয়ার ছানু, স্থানীয় সরকার বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী ফয়জুল হক, সড়ক ও জনপথের নির্বাহী প্রকৌশলী গ্উাস উল হাসান মারুফ, পানি উন্নয়ন বোর্ডর নির্বাহী প্রকৌশলী মাঈনু উদ্দিন ও পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির জেনারেল ম্যানেজার আব্দুর রশিদ মৃধা।

স্বাস্থ্য মন্ত্রী জাহিদ মালেক আরো বলেন, একটি পৌরসভা হচ্ছে জেলা শহরের ড্রইং রুম। এই ড্রইং রুম সাজানো গোছানো না থাকলে জেলার উন্নয়ন দৃশ্যমান হয় না। মানিকগঞ্জ পৌরসভাকে একটি আধুনিক পৌরসভায় রূপান্তর করতে হলে একটি মাস্টার প্ল্যান তৈরি করতে হবে। আগামীতে যত উন্নয়ন হবে তা মাস্টার প্ল্যান অনুযায়ী হবে।

মন্ত্রী আগামীতে পৌর এলাকায় একটি মিনি স্টেডিয়াম, শিশুপার্ক, শহরের খাল সৌন্দর্যবর্ধন প্রকল্প গ্রহণ করার জন্য পৌর মেয়রকে অনুরোধ করেন।

কড়চা/ এস কে

Facebook Comments
ভাগ